এমপি খোকা’র বিরুদ্ধে সাবেক এমপি কায়স এর মামলা পরে খারিজ

নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনের জাতীয় পার্টির এমপি লিয়াকত হোসেন খোকার বিরুদ্ধে একই আসন থেকে নির্বাচিত আওয়ামী লীগের সাবেক সংসদ সদস্য আবদুল্লাহ আল কায়সার হাসনাত মানহানী মামলা দায়ের করেছেন।

আজ বুধবার সকালে নারায়ণগঞ্জ জেলা আদালতের সিনিয়র জেলা জুডিশিয়ার ম্যাজিষ্ট্রেট হুমায়ূন কবিরের আদালতে এ মামলাটি দায়ের করেন। এসময় আদালত মামলাটি গ্রহন করে পরবর্তি আদেশের জন্য দিন ধার্য করেন।

কায়সার হাসনাতের আইনজীবি এডভোকেট জসিম উদ্দিন জানান, আবদুল্লাহ আল কায়সার আওয়ামী লীগের দলীয় একজন সাবেক সংসদ সদস্য তার পিতা মরহুম আবুল হাসনাত সাহেব সোনারগাঁও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ছিলেন, তার চাচাও একজন সাংসদ ছিলেন, তার মা মমতাজ বেগম একজন মহিষী নারী যিনি সোনারগাঁও উপজেলা আওয়ামী মহিলা লীগের সভানেত্রী ছিলেন। সেই নেত্রী অথাৎ কায়সার হাসনাতের মাকে জড়িয়ে বর্তমান সাংসদ যে বক্তব্য দিয়েছেন তা মিথ্যা রানোয়াট ও অত্যন্ত মানহানীকর। যা আমার মক্কেলের পরিবারের জন্য লজ্জাজনক একটি বিষয়। সেজন্য সাবেক সংসদ সদস্য স্ব-প্রনোদীত হয়ে তাদের পরিবারের মানক্ষুন্ন হওয়ায় বর্তমান সাংসদের বিরুদ্ধে একটি মানহানীর মামলা দায়ের করেছেন।

এ ব্যাপারে সাবেক এমপি কায়সার হাসনাত বলেন, বর্তমান সাংসদ লিয়াকত হোসেন খোকা গত ২৬ তারিখে সোনারগাঁও পৌরসভার একটি জনসভায় বলেছেন, আমি নাকি আমার মায়ের বিরুদ্ধে মামলা দিয়ে আমার মাকে আদালতের কাঠগড়ায় দাড় করেছি। যে মাকে আমি পৃথিবীর সবচেয়ে বেশী ভালবাসি সে মাকে নিয়ে বর্তমান সাংসদ রাজনৈতিক কারনে মিথ্যা অপবাদ দিয়ে আমাকে ও আমার পরিবারকে হেয় করার চেষ্টা করছে। যা মিথ্যা ও বানোয়াট আমার মা ও পরিবারের জন্য অত্যন্ত লজ্জাজনক ও মানহানিকর। সেজন্য আমি বাদী হয়ে বর্তমান সংসদের বিরুদ্ধে মানহানীর মামলা দায়ের করেছি।