লকডাউনে সীমিত পরিসরে ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে মার্কেট খোলার দাবীতে মানববন্ধন

লকডাউনে সীমিত পরিসরে ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে মার্কেট খোলার দাবীতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করেছে ব্যবসায়ীরা। মঙ্গলবার (৬ এপ্রিল) সকালে নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সামনে জেলা দোকান মালিক সমিতির উদ্যোগে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

এ সময় ব্যবসায়ীরা নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাব থেকে বিক্ষোভ মিছিল শুরু করে, যা শহরের চাষাঢ়া হয়ে ২ নম্বর রেলগেট ঘুরে প্রেসক্লাবের সামনে এসে শেষ হয়।মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, পবিত্র রমজান মাস ও ঈদকে সামনে রেখে স্বাস্থ্যবিধি মেনে দোকান খোলা রাখতে চাই। একই সাথে সামনে বৈশাখ। এই সময় আমাদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান মার্কেট বন্ধ থাকলে ব্যবসায়ীদের অনেক ক্ষয়ক্ষতি হবে।

তখন আমাদের পরিবারের কি হবে? শুধুমাত্র আমরা না আমাদের কর্মচারীদের কি হবে? এই একটা মাস আমাদের ব্যবসা করার সময়। কলকারখানা, কাঁচাবাজার সব চালু রেখেছে সরকার। অথচ আমাদের ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের দোকানপাট বন্ধ রেখে বাকি সব চালু রয়েছে। এটা কেমন লকডাউন।কাপড় ব্যবসয়ীরা বলেন, শহরের কালির বাজার ফ্রেন্ডস মাকের্টসহ শহরের অন্যান্য মাকের্টের কাপর ব্যবসায়ীরা লকডাউন চায় না। কেননা সারা বছরের ব্যবসা এই এক মাসে হয়ে থাকে।

গত বছরও একই সময়ে সারাদেশে লকডাউন ছিল। আর এজন্য তখন আমাদের ব্যবসা বানিজ্য বন্ধ ছিল। ওই দুঃসময় এখনো আমরা কাটিয়ে উঠতে পারি নাই। প্রধানমন্ত্রীকে বলতে চাই লকডাউন প্রত্যহার করে আমাদেরকে ব্যবসা করার সুযোগ দিন। আমরা পেটের তাগিদে বাধ্যহয়ে রাস্তায় নেমেছি। একইরকম যদি চলতে থাকে তাহলে আমরা ব্যবসায়ীরা ঋণের চাপে মারা যাবো। কলকারখানা গার্মেন্টস যেভাবে খোলা রেখেছেন একইভাবে মার্কেট খোলার অনুমতি দেওয়ার জন্য আমরা প্রধানমন্ত্রীর কাছে দাবি জানাচ্ছি। যদি আমাদের দাবী না মানা হয় তাহলে আমরা আমাদের নিজেদের মত করে দোকান খুলবো।

আমরা সহানুভূতি চাই না, আমরা কাজ করে বেঁচে থাকতে চাই।এসময় নারায়ণগঞ্জ জেলা দোকান মালিক সমিতির সহসভাপতি হাসানের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, নারায়ণগঞ্জ জেলা দোকান মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক দিপু, সহ- সভাপতি শাহীন, যুগ্ম সম্পাদক মিনার, সাংগঠনিক সম্পাদক নিজামুদ্দিন, দপ্তর সম্পাদক আলম প্রমুখ।