ফতুল্লায় অপহরণের অভিযোগে যুবক গ্রেফতার, কিশোরী উদ্ধার

বিশেষ প্রতিনিধি ঃ ফতুল্লায় অপহরণের অভিযোগে লিটন (৩০) নামের এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

এসময় তার হেফাজত থেকে অপহৃত কিশোরীকেও উদ্ধার করা হয়েছে।

লিটন ফতুল্লা থানার আরাফাত নগরের মৃত নুরুল ইসলামের পুত্র।

মঙ্গলবার (৮ জুন) দুপুরে ফতুল্লার ধর্মগঞ্জ ঢালিপাড়া এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

এর আগে অপহৃত কিশোরীর মা হনুফা বেগম বাদী হয়ে গ্রেফতারকৃত লিটনসহ কয়েকজনকে আসামী করে ফতুল্লা থানায় মামলা করেন।

মামলায় তিনি উল্লেখ করেন- তার মেয়ে বিগত ৪/৫ মাস ধরে পঞ্চবটী প্রেমরোডস্থ স্বপনের হোসীয়ারীতে কাজ করে আসছিলো। হোসিয়ারীতে যাতায়াতকালে বখাটে লিটন প্রায় সময় তার মেয়েকে উত্যক্ত সহ প্রেম নিবেদন করতো। বিষয়টি তার মেয়ে তাদের নিকট অবগত করে। পরবর্তীতে বাদী ও তার স্বামী উত্যক্তকারী লিটনকে তার মেয়েকে বিরক্ত না করার জন্য অনুরোধ করে। এতে করে লিটন আরো বেশী ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে। চলতি মাসের ৩ তারিখ সকাল সাড়ে আটটার দিকে তার মেয়ে তাদের ধর্মগঞ্জের ঢালিপাড়াস্থ মুন্সিবাড়ী রোডেস্থ বাসা থেকে কাজের উদ্দেশ্যে বের হয়ে হোসিয়ারীতে যাওয়ার পথে লিটন সহ অজ্ঞাতনামা আরো একাধিকজন জোরপূর্বক একটি সিএনজিতে করে অজ্ঞাতনামা স্থানে অপহরন করে নিয়ে যায়। পরবর্তীতে একই দিন দুপুর সাড়ে ১২ টার দিকে লিটন বাদীর বড় মেয়ের মোবাইল নাম্বারে ফোন করে জানায় যে, তার মেয়ে লিটনের হেফাজতে রয়েছে। এ বিষয়ে বেশী বাড়াবাড়ি করলে তার মেয়েকে হত্যা করা হবে বলেও হুমকি দেয়।

এ বিষয়ে ফতুল্লা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রকিবুজ্জামান জানান, কিশোরীকে অপহরণের অভিযোগ পেয়ে উদ্ধার অভিযানে নামে পুলিশ। মঙ্গলবার দুপুরে অপহৃত কিশোরীকে উদ্ধার ও অপহরনকারী লিটনকে গ্রেফতার করা হয়। বাদীর লিখিত অভিযোগটি মামলা হিসেবে গ্রহণ করা হয়েছে। অপহৃত কিশোরীকে পরীক্ষার জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।