আগামী ২০ জুন সুবিধাভোগীদের হাতে ঘরের চাবি ও ভূমির কাগজপত্র তুলে দেওয়া হবে

কোর্ট প্রতিনিধি ঃ

মুজিববর্ষ উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীর অগ্রাধিকার প্রকল্পের আওতায় নারায়ণগঞ্জ জেলায় দ্বিতীয় দফায় ভূমি ও গৃহহীন ১৮২ পরিবার পাচ্ছে সরকারি অর্থায়নে নির্মিত নতুন ঘর। আগামী ২০ জুন সুবিধাভোগীদের হাতে ঘরের চাবি ও ভূমির কাগজপত্র তুলে দেওয়া হবে। ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এই কার্যক্রমের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বৃহস্পতিবার (১৭ জুন) দুপুর তিনটায় জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিক সংবাদ সম্মেলনে এই তথ্য জানানো হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সরকার বিভাগ নারায়ণগঞ্জ জেলার উপপরিচালক মো. মনিরুজ্জামান বকাউল, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) সেলিম রেজা, সহকারী কমিশনার ফারজানা আক্তার।

এডিসি সেলিম রেজা জানান, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্ন পূরণের লক্ষ্যে ‘বাংলাদেশে একজন মানুষও গৃহহীন থাকবে না’ প্রধানমন্ত্রীর এই ঘোষণা বাস্তবায়নের লক্ষ্যে ২ শতাংশ জমিসহ নতুন নির্মিত ঘর হস্তান্তর প্রক্রিয়া শুরু হয়। আগামী ২০ জুন দ্বিতীয় দফায় সারাদেশে ৫৩ হাজার ৩৪০টি ঘর হস্তান্তর করা হবে। নারায়ণগঞ্জ জেলার পাঁচটি উপজেলায় ১৮২টি ঘর হস্তান্তর করা হবে। এর আগে এই জেলায় জমিসহ ২৪৬টি ঘর হস্তান্তর করা হয়েছে। দ্বিতীয় পর্যায়ে হস্তান্তর করা ঘরে আনুমানিক ৯১০ জন মানুষ উপকারভোগী হবে বলে জানান সেলিম রেজা।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, নারায়ণগঞ্জ জেলায় ঘর নির্মাণের ক্ষেত্রে অতিরিক্ত নজরদারি ছিল। কোনো ঘর ডিজাইনের বাইরে যায়নি। সাবমার্সিবল পাম্প স্থাপন করে পানি, বিদ্যুৎ, গ্যাস সুবিধা প্রদান করা হয়েছে তাদের। সদর উপজেলায় খাস জমি না থাকায় মাত্র ৪৩টি ঘর নির্মাণকাজ চলছে।