গৃহবধূকে শ্লীলতাহানির অভিযোগে যুবক গ্রেফতার

বিশেষ প্রতিনিধিঃ

ফতুল্লায় গৃহবধূকে যৌন নিপিড়ন ও শ্লীলতাহানীর চেস্টার অভিযোগে সাগর সরদার(১৯) নামের একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।ঘটনাটি ঘটেছে ২১ জুন সন্ধ্যায় ফতুল্লার পুলিশ লাইন টাগার পাড় এলাকায়। ঘটনার এক মাস পর সোহাগ সরদার ও হিমেল নামের দুই জনকে অভিযুক্ত করে মামলা দায়ের করেছে ভুক্তভোগী গৃহবধূর স্বামী।বৃহস্পতিবার (২২ জুলাই) রাতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে সোহাগ সরদারকে গ্রেফতার করে ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশ। গ্রেফতারকৃত সোহাগ সরদার পটুয়াখালী জেলার গলাচিপা থানার ডাকুয়া পূর্ব পাড়ার মিলন সরদারের পুত্র ও পুলিশ লাইনস টাগার পাড় ডেনিসন গার্মেন্টসের পিছনে বাদল বাবুর বাড়ীর ভাড়াটিয়া।বাদীর লিখিত এজাহারের ভিত্তিতে জানা যায়, যে বাদী এবং তার স্ত্রী টাগারপাড় এলাকায় ভাড়ায় বসবাস করে।অভিযুক্ত আসামীরাও পাশাপাশি ফ্ল্যাটে ভাড়া থাকে।বাদীর স্ত্রী আবার জেলার সোনারগাঁওয়ের একটি কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী।বাদীর স্ত্রী কলেজে যাওয়ার পথে আসামীরা প্রায় সময় তার স্ত্রী কে নানা ভাবে উত্ত্যাক্ত করতো।ঘটনার দিন সন্ধ্যা সাতটার দিকে বাদীর স্ত্রী ছাদে গিয়ে শুকানো কাপড় আনতে গেলে আসামীরা তার স্ত্রীকে একা পেয়ে তার যৌন কামনা চরিতার্থ করার উদ্দেশ্য শরীরের বিভিন্ন স্পর্শকাতর জায়গায় হাত দেয়। সে সময় তার স্ত্রী ডাক- চিৎকার করলে আসামীরা তার স্ত্রীকে ছেড়ে দেয়।রাত দশটার দিকে সে নিজ কর্মস্থল থেকে বাসায় ফিরে এলে তার স্ত্রী তাকে বিস্তারিত জানায়। পরে স্থানীয় লোকজন নিয়ে আসামীদের খুঁজতে গেলে তাদের কে আর পাওয়া যায়নি।মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ফতুল্লা মডেল থানার উপ-পরিদর্শক কৃঞ্চ পোদ্দার জানায়,মামলার এজাহার নামীয় প্রধান আাসামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পলাতক অপর আসামীকেও গ্রেফতার অভিযান অব্যাহত ।