দুই স্ত্রীর ঝগড়া থামাতে না পেরে দ্বিতীয় স্ত্রী মাহিনুর বেগমকে হত্যা

আওয়ার নারায়নগঞ্জ ২৪ : বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলায় দুই স্ত্রীর ঝগড়া থামাতে না পেরে অবশেষে মুক্তি পেতে অন্তঃসত্ত্বা দ্বিতীয় স্ত্রী মাহিনুর বেগমকে (৩৫) হত্যা করেছেন স্বামী।

এ ঘটনায় স্বামী আল আমিন ফকিরকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সোমবার (১৫ জুন) দুপুরে উপজেলার নলুয়া ইউনিয়নের আফালকাঠী এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

এর আগে সকালে আল আমিন ফকিরের বাড়ির পাশের সড়ক থেকে মাহিনুর বেগমের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। আল আমিন ফকির উপজেলার নলুয়া ইউনিয়নের আফালকাঠী এলাকার বাসিন্দা। পেশায় তিনি দিনমজুর। নিহত মাহিনুর বেগম তার দ্বিতীয় স্ত্রী ছিলেন।

স্থানীয়দের বরাত দিয়ে বাকেরগঞ্জ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কালাম বলেন, স্ত্রী থাকা সত্ত্বেও মাহিনুর বেগমকে বিয়ে করেছিলেন আল আমিন ফকির। এরপর থেকে সংসারে ঝগড়া-বিবাদ লেগেই ছিল। কারণে-অকারণে সামন্য বিষয় নিয়ে দুই স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া লেগে যেত। সংসারে অশান্তির জন্য তারা স্বামী আল আমিনকে দায়ী করতেন। দুই স্ত্রীর ঝগড়ার কারণে অতিষ্ঠ হয়ে ওঠেন আল আমিন। রোববার রাতে দ্বিতীয় স্ত্রী মাহিনুর বেগমের সঙ্গে ঝগড়া হয়। একপর্যায়ে অন্তঃসত্ত্বা মাহিনুর বেগমকে মারধর ও গলাটিপে হত্যার পর মরদেহ বাড়িসংলগ্ন সড়কের পাশে ফেলে রাখেন আল আমিন।

ওসি আবুল কালাম আরও বলেন, স্থানীয়দের মাধ্যমে সোমবার সকালে খবর পেয়ে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠায় পুলিশ। পরে আল আমিন ফকিরের কথায় সন্দেহ হলে তাকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করলে স্ত্রী মাহিনুর বেগমকে হত্যার কথা স্বীকার করেন। এ ঘটনায় মামলা হবে।