নারায়ণগঞ্জ সোনারগাঁওয়ে বঙ্গবন্ধুর ৪৫তম শাহাদাতবার্ষিকী উপলক্ষে মিলাদ মাহফিল

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৫তম শাহাদাতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলার সাদীপুর ইউনিয়নের গঙ্গাপুর, লস্করবাড়ি ও নানাখি এলাকায় গতকাল শনিবার দিনভর মিলাদ মাহফিল ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য, জাতীয় পার্টির অতিরিক্ত মহাসচিব, প্রেসিডিয়াম সদস্য ও কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টির সভাপতি লিয়াকত হোসেন খোকা।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সোনারগাঁও পৌরসভা জাতীয় পার্টির আহ্বায়ক এমএ জামান, কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টির দফতর সম্পাদক মাহাবুবুর রহমান কামাল, পৌর জাতীয় পার্টির যুগ্ম আহ্বায়ক শফিকুল ইসলাম, নারায়ণগঞ্জ জেলা স্বেচ্ছাসেবক পার্টির সদস্য সচিব জাবেদ রায়হান জয়, আনিসুর রহমান বাবু, সাদীপুর ইউনিয়ন জাতীয় পার্টির আহ্বায়ক আবুল হাশেম, জাতীয় পার্টির নেতা বীরমুক্তিযোদ্ধা নুর হোসেন, আলী আকবর, আওয়ামী লীগ নেতা, এনামুল হক এনাম, ইউপি সদস্য হেনা আক্তার, আওয়ামী লীগ নেতা, রফিক মেম্বার, আব্দুল হাকিম মেম্বার, মহসিন মেম্বার, মানিক, আমির আলী, আশরাফ মেম্বার, কাশেম মেম্বার, জাকির মেম্বার, কালাম, ফিরোজ মিয়া, মাইনউদ্দিন জাতীয় পার্টির নেতা ফজলুল হক মাস্টার, করোনাযোদ্ধা সানাউল্লাহ বেপারি প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে সংসদ সদস্য লিয়াকত হোসেন খোকা বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম এ দেশে না হলে আমরা স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশ পেতাম না। আমরা কেউ স্বাধীনভাবে কথা বলতে পারতাম না।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এ দেশ স্বাধীন করায় আমি আজ এমপি হওয়ার সুযোগ পেয়েছি। আপনাদের সামনে দাঁড়িয়ে উন্নয়নের কথা বলতে পারছি।

যারা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কৃতিত্বকে অস্বীকার করেন, তারা বাংলাদেশি হতে পারে না; তারা রাজাকার, জামায়াত-শিবির ও পাকিস্তানের পক্ষের লোক।

স্বাধীনতাবিরোধী পাকিস্তানের দোসররা এখনও এ দেশের উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত করতে প্রতিনিয়ত ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে। দেশের উন্নয়নের ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে হলে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে।